মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
পাতা

বি.এম.চর ইউনিয়নের ইতিহাস

সাগরবিধৌত কক্সবাজার জেলার অন্যতম বৃহত্তর উপজেলা চকরিয়ার গুরুত্তপূর্ণ ইউনিয়ন বি.এম.চর। চকরিয়া তথা কক্সবাজার জেলার রাজনৈতিক, অর্থনৈতিক, সামাজিক ইতিহাসে বি.এম.চর ইউনিয়ন এর অবদান অনস্বীকার্য। এই ইউনিয়ন এর নামকরণের ইতিহাস সুপ্রাচীন। বি.এম.চর বা ‘ভেওলা মানিক চর’ এই নামের উৎপত্তি সম্পর্কে নানা রকম মতবাদ প্রচলিত আছে। মুরুং উপজাতিরা সর্বপ্রথম বি.এম.চরে বসতি গড়ে তুলেছিল বলে এই এলাকাটি ‘মুরুং ঘোনা’ নামে পরিচিত ছিল। উপজাতীয় সামন্ত শাসক পুরুত্যা ছিল মুরুংদের দলনেতা। প্রজাবৎসল এই শাসকের নাম অনুসারে বি.এম.চর এলাকাটি ‘পুরুত্যাখালী’ নামে পরিচিতি পায়। পুরুত্যার তিন কন্যার নাম ছিল যথাক্রমে আনুপল্লান, হুনা এবং ভেওলা। রূপে-গুণে এবং প্রজাবৎসল্যে প্রবাদ প্রতিম কনিষ্ঠ কণ্যা ভেওলা’র বিয়ে হয় সামন্ত শাসক ও ধর্মীয় নেতা কারিয়া’র সাথে। পুরুত্যা তার কনিষ্ঠ কন্যার বিয়েতে উপহারস্বরূপ বর্তমান ভেওলা মানিক চর, পূর্ব বড় ভেওলা, পশ্চিম বড় ভেওলা এলাকাটি প্রদান করেন। পরবর্তিতে প্রভাবশালী সামন্ত শাসক কারিয়া’র স্ত্রী ও পুরুত্যার কন্যা ভেওলা’র নামানুসারে সমগ্র এলাকাটি ভেওলা পাড়া নামে পরিচিতি লাভ করে। বি.এম.চর এর অনুপন্নার ঘোনা ও হুনারজুম এই দুটি এলাকার নামকরণ করা হয় পুরুত্যার প্রথম ও দ্বিতীয় কন্যার নামে। অপর একটি মতমত হল, ভেওলা (বেহুলা) লক্ষিন্দরের নাম অনুসারে ভেওলা মানিক চর, পূর্ব বড় ভেওলা ও পশ্চিম বড় ভেওলা ইউনিয়ন গুলির নামকরণ করা হয়। এই মতামতে বিস্বাশীদের মতে বেহুলার (ভেওলা) সর্পদংশিত স্বামী ভেলায় ভেসে বর্তমানে পশ্চিম বড় ভেওলা নামে পরিচিত উপকূলীয় এলাকায় আটকে ছিল। অর্থাৎ, বেহুলা বা ভেওলা নামের এক রূপসী নারীর নাম থেকেই বি.এম.চর বা ‘ভেওলা মানিক চর’ নামের উৎপত্তি হয় তথ্য সূত্রঃ ১. আরাকানের ইতিহাস, ‘রাজোয়াং' । ২. চকরিয়ার ইতিহাস, ‘মোহাম্মদ আমীন’ ।